মুক্তির অপেক্ষায় গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‘স্বপ্নজাল’

ছাড়পত্র ডেস্ক

প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ০৭, ২০১৮

গিয়াস উদ্দিন সেলিম বাংলাদেশি চলচ্চিত্রে মেধাবী একজন নির্মাতা। তার নির্মিত মনপুরা ছবিটি যথেষ্ট ব্যবসাসফল। ২০০৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ছবিটির পর দীর্ঘদিন তিনি নতুন আর কোনও ছবি বানাননি। প্রায় নয় বছর পর সেলিম এবার বানাচ্ছেন তার দ্বিতীয় সিনেমা ‘স্বপ্নজাল’। এরই মধ্যে ছবিটির মুক্তি নিয়ে প্রচারণাও শুরু করেছে তার টিম। ৫ ফেব্রুয়ারি সোমবার হয়ে গেল ছবিটির প্রিভিউা।

পূর্ব ঘোষিত তারিখ অনুযায়ী সোমবার প্রিভিউ কমিটি ‘স্বপ্নজাল’ দাখে। এফডিসিতে হয় ছবিটির প্রদর্শনী। এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রিভিউ কমিটির সদস্য প্রযোজক নাসিরউদ্দিন দিলু, প্রদর্শক সমিতির সভাপতি ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ, পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছসহ তথ্য মন্ত্রণালয় ও এফডিসির কর্মকর্বৃতারা। ছিলেন ছবির নির্মাতা গিয়াস উদ্দিন সেলিমও।

গিয়াস উদ্দিন সেলিম গণমাধ্যমকে বলেন, প্রিভিউ কমিটির প্রতিক্রিয়া দেখে মনে হয়েছে, তারা ছবিটি পছন্দ করেছেন। এখন অনুমতিপত্র পেলেই কাল বা পরশু সেন্সরবোর্ডে দিয়ে দিবো। আর সেন্সর ছাড়পত্র হাতে পেলে আশা করছি শিগগির ছবির মুক্তির তারিখও জানিয়ে দিবো।

যৌথপ্রযোজনায় নির্মিত ‘স্বপ্নজাল’। আর যৌথপ্রযোজনা নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরেই চলছে নানা বিতর্ক। সিনেমাটিতে যৌথনীতিমালা নিয়ে কোনো আপত্তি নেই জানিয়ে পরিচালক সমিতির সভাপতি গুলজার আহমেদ চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, সেন্সর পাওয়ার আগে ‘স্বপ্নজাল’ নিয়ে মন্তব্য করতে চাই না। তবে ছবিটিকে প্রিভিউ কমিটি দেখার পর আমরা অনুমোদন দিয়ে দিয়েছি। আর এই ছবিতে যৌথপ্রযোজনা বিষয়ক কোনো জটিলতা নেই। যৌথ প্রযোজনার সকল নিয়ম কানুন ঠিকঠাকভাবে মেনেই করা হয়েছে। এমনকি চরিত্র, গল্প, লোকেশন সব দিক দিয়েই ভারতের চেয়ে বাংলাদেশকে বেশি প্রাধান্য দেয়া হয়েছে।যৌথ প্রযোজনার ‘স্বপ্নজাল’ বাংলাদেশ থেকে বেঙ্গল ক্রিয়েশনস ও ভারত থেকে বেঙ্গল বারতা প্রযোজনা করছে। ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। তার বিপরীতে আছেন ইয়াশ রোহান। এছাড়া অভিনয় করেছেন ইরেশ যাকের, ফজলুর রহমান বাবু, শহীদুল আলম সাচ্চু প্রমুখ।

ধারাবাহিক