সুমন দেবনাথের ভ্রমণগদ্য ‘খোশবাগ’

সুমন দেবনাথের ভ্রমণগদ্য ‘খোশবাগ’

ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০

মুর্শিদাবাদের খোশবাগ স্থানটি সম্ভবত সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ঐতিহাসিক স্থান। অন্তত আমার তাই মনে হয়। আপাতদৃষ্টিতে ৩৪টি কবর সম্বলিত এই খোশবাগ সিরাজের খুব পছন্দের জায়গা ছিল।


শামীমা জামানের ভ্রমণগদ্য ‘গাছেদের শহরে’

শামীমা জামানের ভ্রমণগদ্য ‘গাছেদের শহরে’

মিষ্টি বিষণ্ণ একটা শহর। সে আমার কেউ হয় না। কিছুদিন সেখানে ছিলাম। তবু শহর যেটা পারে, আপন করে নিতে, সামান্য মানুষ হয়ে সাধ্যি কি সে উদাত্ত আহ্বান ফেরাবার। উত্তর আমেরিকার সোনার রাজ্য ক্যালিফোর্নিয়া।


ডিসেম্বর ৩১, ২০১৯

আগরতলায় আড্ডা আর বই বিনিময় প্রসঙ্গ

আগরতলায় আড্ডা আর বই বিনিময় প্রসঙ্গ

বালাদেশের পাঠকরা যাতে ত্রিপুরার প্রকাশিত বই সংগ্রহ করতে পারেন এবং একইভাবে ত্রিপুরার পাঠকরা যাতে বাংলাদেশে প্রকাশিত বইগুলি পাঠ করতে পারেন; সংশ্লিষ্ট সকলে তার ব্যবস্থা নেবেন বলেই আমার বিশ্বাস।


ডিসেম্বর ৩১, ২০১৯

আগরতলায় মানিক সরকার ও গৌতমদার সঙ্গে

আগরতলায় মানিক সরকার ও গৌতমদার সঙ্গে

গত উনিশ তারিখ ত্রিপুরা বেড়াতে গিয়ে প্রথম উদয়পুরে লিটল ড্রামা গ্রুপের নাট্য উৎসবে যোগ দেই। সেখানে মলয় ভৌমিকের বুদের কুপে পড়া নাটকটা দেখি বিশে ডিসেম্বর সন্ধ্যায়। বক্তব্য প্রধান নাটক।


ডিসেম্বর ২৬, ২০১৯

রাহমান চৌধুরীর গদ্য ‘ত্রিপুরার উদয়পুর ভ্রমণ’

রাহমান চৌধুরীর গদ্য ‘ত্রিপুরার উদয়পুর ভ্রমণ’

সীমান্ত পার হয়ে ষাট কি‌লো‌মিটার দূ‌রে ত্রিপুরার উদয়পুর গোমতী নদীর পা‌শে। ষাট কি‌লো‌মিটার প‌থের দুপা‌শের প্রকৃ‌তিক শোভা নয়ন জুড়া‌নো, মন মাতা‌নো। সীপাহী‌জোলা পার হ‌য়ে এখা‌নে আসতে হয়।


ডিসেম্বর ২০, ২০১৯

আমরা কবিতার জন্য ইম্ফল গিয়েছিলাম

পর্ব ২৬

আমরা কবিতার জন্য ইম্ফল গিয়েছিলাম

ছিল রুমাল, হয়ে গেল বিড়াল! কী সুন্দর জাদুখেলা! শৈশবে যখন প্রথমদিন দেখেছিলাম, বড় হতবাক হয়েছি! হতবাক নাকি বিস্ময়ে অভিভূত, আজ ঠিক বলতে পারব না।


ডিসেম্বর ১৬, ২০১৯

আমরা কবিতার জন্য ইম্ফল গিয়েছিলাম

পর্ব ২৫

আমরা কবিতার জন্য ইম্ফল গিয়েছিলাম

সিটে আসন নেয়ার পর থেকে দেখলাম আরো বেশ ক-জন আকাশবালিকা। পুরো বিমানজুড়ে ওরা পাঁচ ছ-জন হবে, পাখা ঝাপটিয়ে ঝাপটিয়ে ওড়াওড়ি করতে লাগল। আমি নিবিষ্ট মনে ওদের পাখার রঙিন মখমল দেখতে লাগলাম।


নভেম্বর ২৫, ২০১৯

আমরা কবিতার জন্য ইম্ফল গিয়েছিলাম

পর্ব ২৪

আমরা কবিতার জন্য ইম্ফল গিয়েছিলাম

যাত্রী লাউঞ্জের ডিভানে বসে কবি এ কে শেরাম তার দুর্গম পথের ইম্ফল যাত্রার কাহিনি শোনাতে শোনাতে হঠাৎ বলে ওঠলেন, বাড়ির সাথে যদি কেউ কথা বলতে চান, এখনই বলে নিন। এখান থেকে বাংলাদেশের সিমে কথা বলা যায়।


নভেম্বর ১৮, ২০১৯

তুমি আবার এসো আমার ভিতর

তুমি আবার এসো আমার ভিতর

মায়া ছিঁড়ে গেছে তোমার। ধীরে আমাকেও ছিঁড়ে যাবে তুমি। জল আঁকড়ে ধরার এই অন্ধ স্মৃতি থাকবে তোমার? আমি মনে রাখবো দুই মাসের গর্ভ-আলো, রক্তপাত, ঝড়? অনেক রক্ত নিয়ে কোন ইশারায় ঝরে গেছ তুমি।


নভেম্বর ১২, ২০১৯

আমরা কবিতার জন্য ইম্ফল গিয়েছিলাম

পর্ব ২৩

আমরা কবিতার জন্য ইম্ফল গিয়েছিলাম

হো হো করে আমি হেসে ওঠলাম। আর হাসির সঙ্গে সঙ্গে মনের সব তিক্ততা যেন এক লহমায় কোথায় উবে যেতে লাগলো। সকালে নাস্তা করতে গিয়ে একটা ‘ইয়ে’ ঘটনার শিকার হয়েছিলাম, ‘ইয়ে’ মানে আসলে বলতে চাচ্ছিলাম না


নভেম্বর ০৬, ২০১৯

আমরা কবিতার জন্য ইম্ফল গিয়েছিলাম

পর্ব ২২

আমরা কবিতার জন্য ইম্ফল গিয়েছিলাম

সাতসকালে ঘুম ভাঙতেই জানালা দিয়ে যেই বাইরের দিকে চোখ গেল, দেখি টুলটুলে চোখে আমার দিকে তাকিয়ে আছে আগরতলা রাজবাড়ির কোনো এক মণিপুরি বধূ। কী অপূর্ব মায়ামুখ। চোখ আর সে-দুটি চোখ থেকে সরিয়ে নিতে পারি না।


অক্টোবর ২৮, ২০১৯