করোনা আপডেট
আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৮২৪৪৮৬ ৭৬৪০২৪ ১৩০৭১
বিশ্বব্যাপী ১৭৬১০৪১৫৬ ১৫৯৬৯৯০৯৬ ৩৮০২১৬৫

কামুর লেখা গান গেয়ে জিতে নিন পুরস্কার

ছাড়পত্র ডেস্ক

প্রকাশিত : জুলাই ২১, ২০২০

কামরুজ্জামান কামু এ দেশের সংগীতপ্রিয় মানুষদের কাছে খুবই পরিচিত একটি নাম। তার লেখা বেশকিছু গান লোকের মুখে মুখে। বিশেষ করে দলছুটের সঞ্জীব চৌধুরীর গাওয়া ‘তোমার ভাঁজ খোলো আনন্দ দেখাও, করি প্রেমের তর্জমা’ বা ‘বায়োস্কোপের নেশায় আমায় ছাড়ে না’সহ বেশকিছু গান বাংলার মানুষের প্রাণে এখনো বাজে।

কবি হিশেবেও রয়েছে তার ব্যাপক জনপ্রিয়তা। দেশের তরুণ প্রজন্মের কাছে তার কবিতা ও গান একটি ব্র্যান্ড। সঞ্জীব চৌধুরীর মৃত্যুর পর তরুণ প্রজন্মের বেশ ক’জন শিল্পী তার গানে কণ্ঠ দিয়েছেন। সেসব গানও পেয়েছে জনপ্রিয়তা। এবার আপনি চাইলেই গাইতে পারেন কামুর লেখা গান। আপনাকে সে সুযোগ এনে দিচ্ছে ইউটিউব চ্যানেল সান বিডিটিউব।

আয়োজক এ চ্যানেলটি থেকে জানানো হয়েছে, ইউটিউবে শুরু হলো গানের প্রতিযোগিতামূলক অনুষ্ঠান ‘গানের গলার খোঁজে’। কবি ও গীতিকার কামরুজ্জামান কামুর কথা ও সুরে, জনপ্রিয় মিউজিশিয়ানদের কম্পোজিশনে নতুন গানে কণ্ঠ দেয়ার সুযোগ এলো সংগীতপ্রিয় তরুণ-তরুণীদের।

এটি মূলত ইউটিউব নির্ভর গানের শিল্পী খোঁজার একটি প্রতিযোগিতা। এ প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবে যে কোনো বয়সের মানুষ। তাদের মধ্যে যে কেউ হয়ে যেতে পারে গানের ভুবনে আগামী দিনের তারকা।

প্রাথমিক বাছাইয়ের আগে প্রতিযোগীকে প্রিয় যে কোনো একটি বাংলা গান খালি গলায় গেয়ে মোবাইল বা ক্যামেরায় ভিডিও ধারণ করে পাঠিয়ে দিতে হবে [email protected] এ। ভিডিওটির সঙ্গে দিতে হবে নাম-ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর।

বিচারকদের প্রাথমিক বাছাই শেষে প্রতিযোগীর ভিডিওটি আপ্লোড করা হবে ‘সান বিডিটিউব’ ইউটিউব চ্যানেলে। দর্শকদের লাইক, কমেন্ট ও বিচারকদের রায়ে চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত প্রথম দশজন পাবে কবি কামরুজ্জামান কামুর নতুন গান গাওয়ার সুযোগ।

আয়োজকরা জানান, শুধু বাংলাদেশ নয়, এ প্রতিযোগিতায় পৃথিবীর যেকোনো দেশ থেকে প্রতিযোগীরা অংশগ্রহণ করতে পারে। রাজধানী ঢাকায় এক জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে নির্বাচিত দশজনকে প্রদান করা হবে বিশেষ পুরস্কার। তৈরি হবে দশটি মনোমুগ্ধকর মিউজিক ভিডিও এবং তা ছড়িয়ে দেয়া হবে বিশ্বজুড়ে।

ভিডিও পাঠানোর শেষ তারিখ ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০।