করোনা আপডেট
আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ১৫৪৪২৩৮ ১৫০৩১০৬ ২৭২৫১
বিশ্বব্যাপী ২২৯৪৮৮৩৫৭ ২০৬১৪৪৭২২ ৪৭০৮২৭৮
আবু তাহের সরফরাজ

আবু তাহের সরফরাজ

আবু তাহের সরফরাজের ৬ কবিতা

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ০৬, ২০২১

তোমার চোখে

তোমার চোখে বৃষ্টিজল
তোমার চোখে ছলাৎছল

চোখে কীসব মায়া!

আমার চোখে সূর্য ডোবে
কে এসে এই দৃশ্য ছোঁবে?

পাতার ওপর গড়িয়ে পড়ে
এক চিলতে ছায়া।

বিষণ্ণ বেড়াল

মুখুজ্যে বাড়ি থেকে যে বেড়াল এসেছিল
তা এখন তোমার বেড়াল।
তুমি তাকে খাওয়াচ্ছ
তুমি তার সঙ্গে খেলা করছ।

তুমিও যে একটা বিষণ্ণ বেড়াল।

কামভাব

হাতের স্পর্শ পেলে অতলান্ত জল
বালিকা প্রণয়ী হয় জ্বালিয়ে অনল।
শীৎকারে ফুল ফোটে শীতের বাগানে
শীত জানে কার মন শরীরের গানে
মুখরিত, প্রাণ পায় চাঁদের শিথানে
কামভাব চুরি করে কোন ভাব আনে?

ঘোরের পাখি

ঘোরের পাখির মতো চলো উড়ে যাই
চাঁদের ওপর দিয়ে ওই জ্যোছনায়
আকাশের গায়ে কত ঝুলতেছে গ্রহ
হঠাৎই পড়ে যদি, করে বসে দ্রোহ?

ভয় হয়, উড়ি তবু কেঁপে ওঠে ডানা
ঘোরের মধ্যে জেগে উঠতে নেই মানা।

ডাকঘর

ডাকঘর আছে গ্রামে
সরকারি লোক
                চিঠি দ্যায় খামে

খাম খুলে আমি
পড়ি আর থামি
                অক্ষরে খুব ধুলো
                কাঁপছে শব্দগুলো

আমাদের গ্রামে যারা যারা থাকে
চিঠি এলে একে অন্যকে ডাকে।

চাঁদ

সূর্যের আলোয় চাঁদ দ্যাখা যায় না
যদিও সে আছে, তবু অনুজ্জ্বল

সূর্য ডুবে গেলে প্রকাশ পায় তার ঔজ্জ্বল্য
রাত্রির স্তব্ধতায়, মহাবিশ্বের নিঃসীম নির্জনে

এসময় চাঁদ নিজেই অনন্য!