করোনা আপডেট
আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৩৪৫৮০৫ ২৫২৩৩৫ ৪৮৮১
বিশ্বব্যাপী ৩০৩৭৫৩৯৭ ২২০৬০০১৬ ৯৫০৯৮৮

আশিক আকবরের একগুচ্ছ কবিতা

প্রকাশিত : নভেম্বর ২২, ২০১৯

লিসার প্রতি

তুই মর।
তোকে চুদিবো না।
তোক নিয়া রেলগাড়ি চইড়া যাইবোই না মধুপুর।
চুনিয়াতে না খাব।
রফিক মারাককে বলবো,
চুতমারানির ভাই, আমাক ভাত কই?
ধানমন্ডির ধান্যক্ষেত্র কই!
ধান কই?
ডাইনিং টেবিলে হামাক পোলাও কই?
তোর কুকুর কন্যা কইরে টাঙগাইল্লা?
ওক তো অপহরণ কইরা চান্দে নিয়া চুদবো।

ছাদ থেকে হাত তুলে কবো রে রফিক,
বন্ধু রে আমার,
লিসারে আমার,
মাতৃচোদন থেকে বাঁচা!

মা যে মেয়েদের এত চোদে...
তুই তো জেনে গেলি না রফিক!
জানায়েও গেলি না।
লিসারে, তোর জন্য দুধে ধুয়ে রেখে দেই।

ওর চুল চোখ মাথা,
বুক ভ্যাজাইনা,
ঊরুর চিপায় জমা লাল ফাঙ্গাস।
সবল ঊরু,
ভগাঙ্কুরের তির তির কাঁপা।
এমন কি দুঃসময়ের কাল তরে মজুদ গোয়া।
ছোলো ছাটা বাল।
পাখিগান।
তুই আয়,
মটরসাইকেল ভটভট করতে করতে
মধুপুর বন ফাটাতে
ফাটাতে
মুক্তিযোদ্ধাসম আয়।
ঝিরির ঝর্ণাসম জলে জঙ্গলে ঝোপে
লিঙ্গ ঘষে আয়।
আয়।

সিরাজ শিকদারকে বাঁচা।
ওর কবিতা,
তিরিশীয় তলাবিহীনতা থেকে অনেক উপরে

১৯. ১১. ২০১৯

বোকা আর্টিস্ট

বোকা আর্টিস্ট, মানুষের মুখের ভাষা পড়তে পারে না।
হি হি হি,
ব্রহ্মপুত্র,
এই শালা তোমাকে বিক্রি করছে।
বুঝতে পারছে না, ওকে জলের ভাষা, ঢেউয়ের ভাষা,
ঢেউয়ের উপর ভাসা খড়কুটোটির,
ঝরাপাতাটির,
নদপাড়ে আটকে পড়া কচুরিপানাটির,
জার্মান থেকে আসা এই জারমুনি ফুলে
এনজেলা মার্কেলদের কোনো গোপন ইতিহাস লেখা আছে কিনা?
হের ফুরার হিটলার,
হার হাইনেস ইফা ব্রাউনের লুকানো মুছকি আছে কিনা!
হের হিটলার,
আপনাকে নারীদের পক্ষ থেকে লক্ষ লক্ষ ফুল তোড়া,
কোটি কোটি লাল নীল হলুদ কালো গোলাপি আকাশি বেগুনি ফুলের পাপড়ির অঞ্চলি
যেহেতু আত্মহত্যার ছ’ঘণ্টা আগে হলেও
আপনি তাকে স্ত্রী আসনে বসিয়ে গেছেন
ওহে,
কৃষ্ণ প্রেমিকা ভারতীয় বামাবৃন্দ
হিটলার লিঙ্গে জল ঢালুন
কুৎসিত ভারতবর্ষে আরো এক কৃষ্ণের জন্ম হতে পারে
কৃষ্ণ তো কমরেড
রাধা তো দধি বেচা রাণ্ডি
এখনো প্রদীপ জ্বালিয়ে অপেক্ষা যায় না তার
কবে আসছেন কমরেড কৃষ্ণ
দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যরেখা মুছে
মাদাম মার্কেল এনজেলের দিকে যাব
শে মোর ক্রাশ
তার তরে লাখ লাখ মায়ের
ভালোবাসা
সুদূর মধ্য প্রাচ্যের আয়লান শিশু কোলে তার
ওই মৃত শিশুর গোলাপি ঠোঁটে
আমার থরো থরো ঠোঁটের
বন্ধ পাপড়ির তল ভেজা নোনা অশ্রুর ফোঁটা ফোঁটা চুম্বন
ও ক্রাশ এনজেলা আমার
মার্কেল মোর
আমা হৈতে সামলে রাখো মিডিয়াম স্তন
আমি ওই মধ্যপাচ্য শিশির মাথায় তীব্র চুম্বন করে
যীশুকে লজ্জিত করব
আয়লানকে বানাবো পুনর্জীবিত লাসারের ভাই।
লাসার,
লা
সা

দ্বিতীয় যীশুর ডাক শুনতে কি পাও?

ও বোকচুদ আর্টিস্ট,
কচুরিপানার ময়ূর জন্ম লেখা চোখে
বুড়ো ডারউইনের স্বরে অ স্বরে আ শিখে শিখে ব্রহ্মপুত্রে ওই পাড়ের গাদা বন্দুক নিয়া
ঘুরে বেড়ানো মাওবাদী গেরিলা যোদ্ধদের নিও খবর
একদিন ওই পাড় থেকে নদসহ আঁকিও জেলখানার ছবি
রাখিও না তার কোনো লাল লাল সুউচ্চ দেয়াল
কমরেড হারমাদুল গং
যারা কিনা ওইটা টপকে ব্রহ্মপুত্রে করেছে স্নান
জন জলে মৎস্যসম দিয়াছে সাঁতার
বছির বছির বলে
চর জমি, কাশবন, কান্দুলিয়া, পরান বাজার, গগন শা, ঢাকি কান্দা...
গারো ও মেঘালয় পাহাড়ের ছায়া, মনিপুর,
কমরেড হিজাম ইরাবত আসছি।
অ্যানজেলা,
যদি কবিতার পাখার বাকুম বাকুম উন্মাদিনী করে তোমাকে,
শোনো এই গান...

কমরেড, কমরেড, কমরেড, কমরেড,
হবে না কি ব্যাচমেট?
এইবার পাহাড়ে...

অ্যাই আর্টিস্ট, অ্যারো চিহ্ন দাও, আয়রন হিলের আঁকো ছবি
এইবার
এইবার ওর বধিব পরাণ।

লোকমা সৃজনের জন্য নতুন দিনের লাল গান

দ্যাখো, দ্যাখো, দ্যাখো
এই গানে, এই গানে, মাওবাদী এক সূর্য উঠেছে

একটা শালিক পা ভেঙেছে
আশিক বাবু চুমু খেয়েছে
ট্যাবু ট্যাবু
ট্যাবু
তোরা খা
তোরা খা
নারীর গু আর গু
ইহি ইহি ইহি ইহি
কৃষক ভাইটি
দুধের ভাইটি
দেশি গাভী কিনতে চেয়েছে ওই

মিনা বাজার, মিনা বাজার, মিনা বাজার
আমাদের একটি, প্রাইভেট কার দরকার
খামারে যাব
পিঁয়াজ বুনবো
ইনডিআর, ইনডিআর, ইনডিআর
গুয়া আশিক আকবর মারবো, মারবো
কমরেড, কমরেড, কমরেড!
বুকের বাঁদিকে চিনচিনে ব্যথা উঠিছে ওই

ভীতু রাজকন্যা, তুমি কই? তুমি কই?
পা ভেঙেছে আমেরিকায়
পূর্ববাংলায় এসে,
তোমার কালো যোনি, কারে চোদায়, কারে চোদায়
পারো যদি, পারো যদি,
পথে পথে আসো, গোটা পূর্ববাংলায়।

দ্যাখো, দ্যাখো, দ্যাখো
এই গানে, এই গানে মাওবাদী এক সূর্য উঠেছে

২০.১১.২০১৯

লোকমার জন্য এ এক চ্যালেঞ্জ, সমাজের যৌন জড়তার ট্যাবু ভাঙায়। আশা করি লোকমা পারবে। যেহেতু পাশে আছেন, কমরেড আজাদ, কমরেড কফিল...

আশিক আকবরের সঙ্গীত

এক.

পাখি ডাকে পাখি ডাকে পা খ ই,
পা আ খি,  ডা আ আ কে,
ডা


কে, —ওই
তালগাছগুলো, তালগাছগুলো,
ডাকছে আমাকে,
আ  মা কে,
আ মা কে, —ওই
আমগাছটির ছায়া,
তার বড় বেশি মায়া,
হিরোইনরা, হিরোইনরা, হিরনচিরা...
এইখানে এসে,
নেশা করেছে।
ঝিলমিল কাগজে,
নীলরঙ আগুনে,
ধোঁয়া দিয়েছে।
কালো প্রজা,
কালো প্রজা,
কা লো প্রজাপতিরা,
ক্রসফাআরে, ক্রসফাআরে,
ওদের মেরে ফেলেছে। —ওই
আমার কবি,
অমর কবি,
ভেনজামিন মঁলয়েছ, কা আ লো,
এশিআর কালো যোনি,
বাংলাদেশ,
পূর্ব বা,
তুমি কি,
আছো নাকি,
ভা আ লো?
ইনডিআ, আসাম, বার্মা, মনিপুর, এর ফাঁকে— ওই
পাখি ডাকে, পাখী ডাকে, পা খ  ই, পা আ খি,
আ আ মা মা কে কে
আমাকে।

২১.১১.২০১৯

চুমুর অনুশীলন করুন। যৌনজড়তা মুক্ত হোন। মাওবাদী হোন। আসন্ন বিপ্লবকে এগিয়ে আনুন। বিপ্লবের ক্ষমতা নিজের হাতেই রাখুন।